উত্তরা ক্রিসেন্ট হাসপাতালে পরীক্ষা ছাড়াই দেওয়া হচ্ছে মনগড়া রিপোর্ট

উত্তরা ক্রিসেন্ট হাসপাতালে পরীক্ষা নিরীক্ষার জন্য রক্তের নমুনা নিলেও ল্যাবে তা পরীক্ষা না করেই মনগড়া রিপোর্ট দেয়া হয়। অভিযোগের সত্যতা মেলায় হাসপাতালটিকে ১৫ লাখ টাকা জরিমানা করেছেন র‍্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত। সোমবার বিকেলে র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. সরোয়ার আলম এই জরিমানা করেন।

জানা যায়, র‍্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত উত্তরার ক্রিসেন্ট হাসপাতালের ল্যাবে অভিযান চালায়, রক্তের নমুনা পরীক্ষা করার জন্য মেডিসিন মেয়াদ উত্তীর্ন পায়। এছাড়া পরীক্ষা নিরীক্ষা ছাড়াই মনগড়া রিপোর্ট তৈরি করার প্রমাণ পায় আদালত। যেখানে একটি নমুনা ৭২ ঘণ্টা পর্যবেক্ষণে রাখার কথা থাকলেও তা না করেই আগেই মনগড়া রিপোর্ট দেওয়া হয়। আদালত আরও জানায়, বিশেষজ্ঞ ডাক্তার নমুনা না দেখেই রিপোর্টে স্বাক্ষর করেন। কারণ স্বাক্ষর করতে তার বাসায় যাওয়া হয় তিনি হাসপাতালে বসেন না। আদালত এসব অনিয়ম পাওয়ার কারণে ক্রিসেন্ট হাসপাতালকে ১৫ লাখ টাকা জরিমানা করেন।

এছাড়া অনুমোদনহীন ওষুধ বিক্রির জন্য ক্রিসেন্ট হাসপাতালের ফার্মেসিকে আরও ২ লাখ টাকা জরিমানা করে আদালত।

আরও পড়ুন

Comments are closed.